সর্বশেষ সংবাদ
হোম / জাতীয় / আজ বিদ্যুৎকেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিট উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
electricity

আজ বিদ্যুৎকেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিট উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

সিনিয়র রিপোর্টার:

নিউক্লিয়ার ক্লাবে ইতোমধ্যে যুক্ত হয়েছে বাংলাদেশ। এখন শুধু এগিয়ে যাওয়ার পালা। আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাবনার রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের দ্বিতীয় চুল্লির প্রথম কংক্রিট ঢালাই উদ্বোধন করবেন। রাশিয়ার সর্বাধুনিক প্রযুক্তি, আর্থিক সহায়তা ও সার্বিক তত্ত্বাবধানে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংস্থা আণবিক শক্তি কর্পোরেশনের (রোসাটম) অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এএসই গ্রুপ অব কোম্পানিজ এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিটের রিয়েক্টর ভবনের প্রথম কংক্রিট ঢালাইয়ের মাধ্যমে ইউনিটটির মূল নির্মাণ কাজ শুরু হবে।

সফর সূচী থেকে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী আজ বেলা সাড়ে ১১টায় রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দ্বিতীয় চুল্লির প্রথম কংক্রিট ঢালাই উদ্বোধন ও সংক্ষিপ্ত সুধী সমাবেশে বক্তব্য দেবেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন রাশান ফেডারেশনের উপ-প্রধানমন্ত্রী মি. ইউরি ইভানোভিচ বোরিসভ। শুভেচ্ছা বক্তব্য দিবেন আইএইএ’র পরিচালক মি. দোহী হান। স্বাগত বক্তব্য দিবেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: আনোয়ার হোসেন। পরে বিকেল সাড়ে ৩টায় পুলিশ লাইনস মাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী।

সেখানে ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে নবনির্মিত ঈশ্বরদী-পাবনা-ঢালারচর রেলপথ, ঈশ্বরদী থেকে রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র পর্যন্ত রেলপথ, ঈশ্বরদী থানা ভবন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স, পাবনা মেডিকেল কলেজের ছাত্রাবাস ও ছাত্রী নিবাস, বিভিন্ন উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুৎতায়ন প্রকল্প সহ ৫০টি বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী। দেশের অব্যাহত বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে দেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র নির্মাণ হচ্ছে ঈশ্বরদীর রূপপুরে। চুক্তি অনুযায়ী ফাষ্ট কংক্রিট পোরিং ডেট বা এফসিডি উদ্বোধনের দিন হতে ৬৩ মাসের মধ্যে এই প্রকল্পে উৎপাদিত বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ হবে। বর্তমানে পৃথিবীর ৩১টি দেশে ৪৩৭টি পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র রয়েছে। গত বছর ৩০শে নভেম্বর এফসিডি কাজের উদ্বোধনের পর বাংলাদেশ বিশ্বের ৩২তম পারমাণবিক দেশ হিসেবে স্বীকৃতি অর্জন করেছে। পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার রূপপুর ইউনিয়নে এই পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রটি নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রায় ১২শ’ একর জমির উপর নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রেটি স্বাধীনতা উত্তর বাংলাদেশে সবচেয়ে বৃহৎ ও ব্যয়বহুল প্রকল্প।

এর আগে গত বছর ৩০ নভেম্বর এই পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম ইউনিটের কংক্রিট ঢালাইয়ের উদ্বোধন করা হয়। প্রথম ইউনিটের এই কংক্রিট ঢালাইয়ের কাজ শুরুর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্ব পরমাণু ক্লাবে (নিউক্লিয়ার নেশন) যুক্ত হয়েছে। বাংলাদেশ বিশ্বপরমাণু ক্লাবের ৩২তম সদস্য দেশ। বর্তমানে বিশ্বের ৩১টি দেশে ৪৫০টি পারমাণবিক বিদ্যুতের ইউনিট চালু আছে। এগুলোর মোট উৎপাদন ক্ষমতা প্রায় ৩ লাখ ৯২ হাজার মেগাওয়াট (৩৯২ গিগাওয়াট)। রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ফ্রান্স, চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, ভারত ও পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশ পারমাণবিক বিদ্যুৎ উৎপাদন করে। বাংলাদেশে নির্মাণাধীন এই দুটি ইউনিট ছাড়া বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আরও ৬০টি ইউনিট নির্মাণাধীন রয়েছে। এই ইউনিটগুলোর উৎপাদন ক্ষমতা সর্বমোট আরও প্রায় ৬০ হাজার মেগাওয়াট।এদিকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রকল্প বাস্তবায়নের মোট ব্যয়ের ৯০ শতাংশ অর্থ ঋণে সরবরাহ করছে রাশিয়া। এই প্রকল্পে রাশিয়ার উদ্ভাবিত সর্বাধুনিক ৩+ প্রজন্মের ‘ভিভিইআর ১২০০’ প্রযুক্তির পারমাণবিক চুল্লি ব্যবহার করা হবে।

প্রতিটি ১ হাজার ২০০ মেগাওয়াট ক্ষমতার দুটি ইউনিট স্থাপন করা হচ্ছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে।দুই ইউনিটের মোট উৎপাদন ক্ষমতা হবে ২৪,০০ মেগাওয়াট। আগামী ২০২৩ সালের প্রথম ইউনিটটি এবং পরের বছর ২০২৪ দ্বিতীয় ইউনিট চালু হওয়ার কথা রয়েছে। এই বিদ্যুৎ কেন্দ্রে টানা ৬০ সছর বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যাবে। এরপর অতিরিক্তি আরও ২০ বছর উৎপাদন কাজ চলবে। এছাড়া এই প্রকল্পে ভবিষ্যতে আরও দুইটি ইউনিট করার পরিকল্পনা রয়েছে। সে অনুযায়ী প্রয়োজনীয় জায়গায়ও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে বর্তমানে ২২০০ কর্মী কাজ করছেন। এর মধ্যে রাশিয়ার বিশেষজ্ঞ রয়েছেন ৪৫০ জন। এই প্রকল্পটি বাস্তবায়নে মূল কাজে যুক্ত হবেন ১২৫০০ জন। এর মধ্যে রাশিয়ার বিশেষজ্ঞসহ বিভিন্ন পর্যায়ের ২৫০০ জন যুক্ত থাকবেন।

আরও দেখুন

51aafc

আসন্ন তিন সিটি নির্বাচন অনিয়ম মুক্ত করতে যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান

সিনিয়ির রিপর্টোর: আসন্ন তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনিয়ম মুক্ত করার জন্য সরকারের অবস্থান জানতে চেয়েছে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook