সর্বশেষ সংবাদ
হোম / ক্রাইম সংবাদ / গোপনে তৃতীয় বিয়ে করায় স্বামীর গোপনাঙ্গ কেটে দিল দ্বিতীয় স্ত্রী!
index

গোপনে তৃতীয় বিয়ে করায় স্বামীর গোপনাঙ্গ কেটে দিল দ্বিতীয় স্ত্রী!

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:

গোপনে তৃতীয় বিয়ে করায় দ্বিতীয় স্ত্রীর ব্লেডের আঘাতে মোবারক হোসেন (৩৫) নামে স্বামীর লিঙ্গ কর্তনের ঘটনায় তোলপাড় চলছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ অবস্থায় আহত স্বামীকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল ভোররাতে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলা দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে।

এসময় স্থানীয় লোকজন ঘাতক কোহিনুরকে (২৮) সহ তার সন্তান ও পিতাকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করলে তারা থানা হেফাজতে রয়েছে। এই ঘটনায় আহত ব্যক্তির পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা প্রস্তুতি চলছে।

আহত মোবারক হোসেন রায়পুরের দক্ষিন চরবংশী ইউনিয়নের আবুল ফজলের ছেলে এবং অভিযুক্ত কোহিনুর বেগম কুমিল্লা জেলার বরুড়া থানার সাকচর গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে।

চরবংশী হাজীমারা পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক আলমগীর হোসেন জানান, প্রায় ১৫ বছর আগে মোবারক হোসেন কুমিল্লা শহরে একটি হোটেলে চাকরি করার সুবাধে সেখানেই প্রথম স্ত্রীকে বিয়ে করে। তবে বিয়ের দুই বছরের মাথায় তাকে তালাক দিয়ে কোহিনুরকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। তাদের সংসারে দুটি সন্তান রয়েছে। এর মধ্যে নিজ গ্রামে এসে ১৮ দিন আগে এক কিশোরীকে তৃতীয় বিয়ে করেন মোবারক।

এ ঘটনা জানতে পেরে কোহিনুর সন্তানসহ তার বাবাকে নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে মোবারকের বাড়িতে আসেন। রাতেই তাদের উভয়ের মধ্যে প্রচণ্ড ঝগড়া ও মারধর হয়। একপর্যায়ে মোবারকের পরিবারের হস্তক্ষেপে উভয়পক্ষ শান্ত হয়ে রাতে ঘুমিয়ে পড়লে কোহিনুর মোবারকের কক্ষে গিয়ে ধারালো ব্লেড দিয়ে গোপনাঙ্গ কেটে ফেলে। এতে প্রচুর রক্তক্ষরণ হলে মোবারককে উদ্ধার করে রায়পুর সরকারি হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে মোবারক হোসেনকে কর্তব্যরত চিকিৎসক নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়।

রায়পুর থানার ওসি একেএম আজিজুর রহমান মিয়া জানান, ঘটনাটি মর্মান্তিক। অভিযুক্ত কোহিনুরকে আটক করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আরও দেখুন

road_accident

কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে যাত্রীবাহি বাস খাদে, আহত ১০

একেপলাশ, কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে চট্রগ্রামগামী সোনিয়া পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook