হোম / বিশ্বজুজুড়ে / পারমাণবিক অস্ত্রের বিস্তার বৃদ্ধিতে পুতিনের চিঠির প্রশংসায় ডোনাল্ড ট্রাম্প
_ap_nocredit

পারমাণবিক অস্ত্রের বিস্তার বৃদ্ধিতে পুতিনের চিঠির প্রশংসায় ডোনাল্ড ট্রাম্প

নিউজ ডেস্ক:

পারমাণবিক অস্ত্রের বিস্তার বৃদ্ধিতে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের একটি চিঠির প্রশংসা করে বিবৃতি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত ডোনাল্ড ট্রাম্প। বৃহস্পতিবার ট্রাম্প এবং পুতিন নিজ নিজ দেশের পারমাণবিক অস্ত্র কর্মসূচি বিস্তারের আহ্বান জানান।

ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত না পারমাণবিক অস্ত্রের ইস্যুতে বিশ্বের হুঁশ হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের পারমাণবিক সক্ষমতা অবশ্যই দৃঢ় ও বিস্তৃত করা প্রয়োজন। ’

অপরদিকে, বৃহস্পতিবার সকালে ট্রাম্পের বক্তব্যের কয়েক ঘণ্টা আগে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন মন্তব্য করেছিলেন, ‘কৌশলগত পারমাণবিক শক্তিজনিত ক্ষেত্রে রাশিয়ার সেনাবাহিনীর সম্ভাবনা দৃঢ়তর করা প্রয়োজন। ’

তবে এর আগে গত ১৫ ডিসেম্বর ট্রাম্পকে পারমাণবিক অস্ত্র বিস্তার করতে একটি চিঠি লিখেছিলেন পুতিন। শুক্রবার ওই চিঠিটি প্রকাশ করে ট্রাম্প শিবির। ওই চিঠির প্রশংসা করে ট্রাম্প বলেন, ভ্লাদিমির পুতিনের লেখা চিঠিটি ছিল সুলিখিত। তার ধারণা খুবই সঠিক। আমি আশা করি দু’পক্ষই এই ধারণাকে সামনে নিয়ে যাবে এবং আমাদের সামনে কোনও বিকল্প পথ নেই। ’রাশিয়ার সেইন্ট পিটার্সবার্গে বিক্রি হচ্ছে ট্রাম্প ও পুতিনের মুখোশ

ট্রাম্পকে লেখা চিঠিতে পুতিন বলেন, ‘আশা করছি, বিভিন্ন ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার বাস্তব পদক্ষেপ নেওয়ার মধ্য দিয়ে  আমরা গঠনমূলক এবং বাস্তবসম্মতভাবে কাজ করতে পারব। যা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে গুণগতভাবে নতুন মাত্রায় পৌঁছাবে। ’

ট্রাম্পের পারমাণবিক অস্ত্রের বিস্তার বিষয়ক বক্তব্যের পেছনের কারণও পুতিনের লেখা সেই চিঠি বলে মনে করা হচ্ছে। তবে নির্বাচনি প্রচারণার সময় পারমাণবিক বিস্তারকে ‘বিশ্বের সবচেয়ে মৌলিক সমস্যা’ বলে উল্লেখ করেছিলেন ট্রাম্প।

এদিকে, শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্পের টুইট সম্পর্কে পুতিন বলেন, ওই বক্তব্যে ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রকে আগ্রাসী হিসেবে প্রকাশ করেননি।
আর্মস কন্ট্রোল অ্যাসোসিয়েশনের হিসেব অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের ৭,১০০ টি পারমাণবিক অস্ত্র এবং রাশিয়ার ৭,৩০০টি পারমাণবিক অস্ত্র রয়েছে।

সূত্র: বিবিসি।

আরও দেখুন

Erdogan

তুরস্কে নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন এরদোগান

অনলাইন ডেস্ক: তুরস্কে সাংবিধানিকভাবে শাসন কাঠামোতে পরিবর্তন আনার পর প্রথমবারের মতো একসঙ্গে অনুষ্ঠিত হলো প্রেসিডেন্ট ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook