হোম / দেশজুড়ে / সুন্দরগঞ্জ আসনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে, চলছে গণনা
gobindala

সুন্দরগঞ্জ আসনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে, চলছে গণনা

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

আজ নিছিদ্র নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। এখন চলছে গণনা। আজ সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হয়। তবে দুপুর পর্যন্ত খুব কম সংখ্যক ভোটারের উপস্থিতি দেখা গেছে।

ভোটারদের উপস্থিতি কম হওয়ায় ভোট নিয়ে প্রার্থীর কর্মী সমর্থকদের মধ্যেও তেমন কোনো উৎসাহ ও উদ্দীপনা লক্ষ করা যায়নি। তবে সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠান ও ভোট কেন্দ্রের শান্তি শৃংখলা রক্ষায় প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে পুলিশ, আনসার ও বিজিবির উপস্থিতি ছিল উল্লেখযোগ্য।

এছাড়াও র‌্যাব, বিজিবি পুলিশের স্টাইকিং ফোর্স এবং ম্যাজিষ্ট্রেটদের টহলদারি অব্যাহত আছে। দুপুর পর্যন্ত কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।সরেজমিনে ভোট কেন্দ্রগুলো পরিদর্শন করে দেখা গেছে, ধোপাডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ হাজার ৮৮৩ জন হলেও সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত ৪টি বুথে ভোট দিয়েছে মাত্র ৪৮ জন।

সকাল ১০টায় উত্তর শাহবাজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৪ হাজার ২৫৫ জন ভোটারের মধ্যে ৯ বুথে ভোট দেন মাত্র ৭৭৯ জন। কিশামত হলদিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সকাল ১১টায় ৩ হাজার ৪০৮ জন ভোটারের মধ্যে ভোটদান করেন মাত্র ২১০ জন।

এছাড়া অন্যান্য কেন্দ্রগুলোতেও প্রায় একই অবস্থা দেখা গেছে। দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ভোট কেন্দ্রগুলোতে ২৫ ভাগ ভোটার ভোটদান করেন বলে জানা গেছে।

এদিকে ওই আসনের নিহত এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের স্ত্রী সৈয়দা খুরশিদ জাহান স্মৃতি উত্তর শাহবাজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটদান করেন।

ভোটদান শেষে তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, যেহেতু তার স্বামী এবং তিনি আওয়ামী লীগের একনিষ্ঠ কর্মী, সেজন্য দল এবং নিহত এমপি’র প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে তিনি ভোট দিতে এসেছেন।

লিটনের খুনিরা গ্রেফতার হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন তিনি।

আরও দেখুন

21761480_268295313680546_2995229835169836001_n

ভোলায় পরিবারের সবাইকে অচেতন করে স্বর্ণালংকার ও মালামাল লুট

FacebookTwitterLinkedInGoogle মেহেদী হাসান তানজীল, ভোলা প্রতিনিধি: ভোলার লালমোহনে পরিবারের সবাইকে অচেতন করে প্রায় ৫ লাখ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *