হোম / দেশজুড়ে / সরিষাবাড়ীতে ভাংচূর ও মারধরের মধ্যে দিয়ে শুরু হলো নির্বাচনী প্রচারণা
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

সরিষাবাড়ীতে ভাংচূর ও মারধরের মধ্যে দিয়ে শুরু হলো নির্বাচনী প্রচারণা

সরিষাবাড়ী, (জামালপুর) প্রতিনিধি:

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে আগামী ২৮ মে ৬ষ্ঠ ধাপের নিবাচনের প্রচার প্রচারণা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, সংঘর্ষ ও ভাংচূরের মধ্যে দিয়ে শুরু হয়েছে। শনিবার নির্বাচনী প্রচারণার প্রথম দিনেই উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের নেতা-কমী দের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, মারধর এবং মাইক সেটসহ নির্বাচনী অফিস ভাংচূরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এ ব্যাপারে ডোয়াইল ইউনিয়নের বিএনপির প্রার্থী মোর্শেদুল আলম জানান, আমার কর্মীদেরকে আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা দিচ্ছে এমনকি আমার প্রচারের মাইক সেট ভেঙ্গে দিয়েছে।
একই ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মাসুদ পারভেজ জোসনা জানান, আওয়ামীলীগের কয়েকজন ছেলে আমার প্রচারের মাইক সহ একটি ইজি বাইক ভাংচূর সহ চালককে মারপিট করে তাড়িয়ে দিয়েছে ।
এদিকে পোগলদিঘা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ডাঃ শাহান শাহ বলেন, চেয়ানম্যান শামসের নেতা কর্মীরা আমার নিবাচনী অফিসে অতর্কিত হামলা করে আমার অফিস ও আসবাবপত্র ভাংচূর এবং আমার কর্মীদেরকে মারধর করেছে। তাদেরকে আমি সরিষাবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি করেছি।
আর এক চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থী রুকোনুজ্জামান অভিযোগে বলেন, আমার ছোট ছোট ক‘জন ছেলে বিকালে মাইক নিয়ে প্রচারে গেলে আওয়ামীলীগের ছেলেরা আমার ছেলেদের মারধর করে এবং মাইক সেট কেড়ে নিয়ে চলে যায়।
এদিকে পোগলদীঘা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান শামস উদ্দিনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এটা ডাহা মিথ্যা ও বানোয়াট কখা। বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা হয়তো আড়ালে আবডালে ঘটছে। আমি শুনেছি, ডাঃ শাহান শাহ নৌকা প্রতিক পাওয়ার আগে তার কর্মীদের বাকীতে মটর সাইকেল ভাড়া খাটিয়েছে তারা এখন সেই বাকী ভাড়া চাইতে গিয়ে এই মারামারির সূত্রপাত হয়। এখানে অন্যকে দোষ দিযে েেকান লাভ নেই।
এদিকে সরিষাবাড়ী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ছুটিতে থাকায় তার সাক্ষাৎকার গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি।

আরও দেখুন

05-

আত্মহত্যা করলেন মডেল সাবিরা

স্টাফ রিপোর্টার : চলতি প্রজন্মের মডেল সাবিরা হোসাইন আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার ভোর ৫টার মিরপুরের রূপনগরে ...

Leave a Reply

%d bloggers like this: